দেশের মোস্ট ওয়ান্টেড আসামিদের মঙ্গলবার দোষী সাব্যস্ত করল দুর্গাপুর আদালত। ২০১৩ সালের ১ ফেব্রুয়ারি বেনাচিতির মুথুট ফিন্যান্স নামে সোনা বন্ধকী সংস্থায় ডাকাতির ঘটনায় যুক্ত ছয় আসামিকে দুর্গাপুরের অ্যাডিশনাল ডিস্ট্রিক্ট জাজ ডাকাতির ঘটনায় সরাসরি দোষী সাব্যস্ত করেন। এই ৬ জন হল – দশরথ মাহাতো, উত্তম মাহাতো, বাবু রাজ, রঞ্জিত গিরি, সবুত মাহাতো, নন্দলাল মাহাতো। এই ছয়জনের আগামী ৭ সেপ্টেম্বর শাস্তি ঘোষণা করবেন বিচারক। বাকি পাঁচজন প্রয়োজনীয় প্রমাণের অভাবে বেকসুর খালাস হয়ে যায়। এরা হল অমিত চৌধুরী, মহম্মদ ইসরাইল, তুমিন দেবী, গুড়িয়া দেবী ও অজয় মাহাতো। এদের মধ্যে তুমিন দেবী ও গুড়িয়া দেবীর মধ্যে শাশুড়ি-বৌমার সম্পর্ক।

২০১৩ সালের ১ ফেব্রুয়ারি দিনে দুপুরে মুথুট ফিন্যান্সের দুর্গাপুর শাখায় ডাকাতি হয়। ডাকাত দল প্রায় ৩৬ কেজি সোনার গহনা ও বেশ কিছু নগদ টাকা নিয়ে চম্পট দেয়। পরে পুলিশ ৫ কেজি মত সোনা উদ্ধার করতে সক্ষম হয় বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। একই সঙ্গে দাগী আসামিদের ভিন রাজ্য থেকে ধরতে পুলিশের কালঘাম ছুটে যায়।

সকলেই দাগি আসামি হলেও উত্তম মাহাতো দেশের মধ্যে মোস্ট ওয়ান্টেড আসামি। খুন, ধর্ষণ, ডাকাতিতে সিদ্ধহস্ত উত্তম মাহাতোর বিরুদ্ধে বিভিন্ন রাজ্যে একাধিক মামলা চলছে। তার মধ্য উল্লেখযোগ্য মামলা গুলি হল, ওড়িশার কোরাপুটের একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে চার কোটি টাকা ব্যাঙ্ক ডাকাতির ঘটনা, ধানবাদের একটি ব্যাঙ্কে দুঃসাহসিক ডাকাতির ঘটনা সহ ঝাড়খণ্ড, বিহার এবং বাঁকুড়া, পুরুলিয়ার বিভিন্ন ব্যাঙ্কে ডাকাতির ঘটনায় মূল অভিযুক্ত এই উত্তম মাহাতো। ধানবাদের বাড্ডা জেল থেকে একবার উত্তম মাহাতো জেল ভেঙে পালিয়ে যাবার চেষ্টা করে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। তাই এই মোস্ট ওয়ান্টেড আসামিদের নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্য দিয়ে এদিন দুর্গাপুর আদালতে বিচারকের সামনে হাজির করা হয়। এদিন আদালতে প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয় সঙ্গে সঙ্গে র‍্যাফও নামানো হয়। অনেক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, এই প্রথমবার দুর্গাপুর আদালতে এই ধরনের কড়া নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যে দিয়ে আসামিদের আদালতে হাজির করা হল।

সরকারি আইনজীবী শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জী বলেন, ‘মহামান্য আদালত আজ ৬ জন আসামিকে দোষী সাব্যস্ত করল। আগামী ৭ সেপ্টেম্বর দোষীদের সাজা ঘোষণা করবেন মহামান্য বিচারপতি।’ আসামিপক্ষের আইনজীবী চন্দ্রশেখর সাউ আসামিদের নির্দোষ দাবি করে উচ্চ আদালতে যাওয়ার কথা জানান।

Like Us On Facebook