দুর্গাপুরে বিজেপির দুই দিনের চিন্তন শিবিরে বিজেপির কেন্দ্রীয় ও রাজ্য নেতৃবৃন্দের যোগদানে সরগরম দুর্গাপুর। শনিবার ও রবিবার দুইদিন ধরে বিজেপির কেন্দ্রীয় ও রাজ্য নেতৃবৃন্দ ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনে সাফল্যের লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতির দলীয় কর্মসূচি স্থির করবেন এবং ২০১৮-র পঞ্চায়েত এবং ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে অভূতপূর্ব সাফল্যের চাবিকাঠি কি সেই বিষয়েও দলগত পর্যালোচনা হবে বলে জানা গেছে। দুর্গাপুরে সিটি সেন্টারের একটি হোটেলে হচ্ছে এই চিন্তন শিবির।

এদিনের এই চিন্তন শিবিরে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে বিজেপি পশ্চিমবঙ্গের পর্যবেক্ষক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়, অরবিন্দ মেনন, সুরেশ পূজারি, শ্রীপ্রকাশ জয়সওয়াল, রাহুল সিনহা প্রমুখ এই চিন্তন শিবিরে যোগ দেন। তাছাড়া রাজ্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায়, সায়ন্তন বসু এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়, দেবশ্রী চৌধুরী সহ সাংসদ অর্জুন সিং, সৌমিত্র খাঁ, সুভাষ সরকার সহ বর্ধমান-দুর্গাপুর লোকসভা আসনের বিজেপি সাংসদ সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া সহ রাজ্য বিজেপির অন্যান্য নেতারা এদিন চিন্তন শিবিরে যোগদান করেন। এই চিন্তন শিবিরে যোগদান করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরী বলেন, ‘ধারাবাহিক ভাবে নির্বাচনের সাফল্যকে ধরে রাখার জন্য বিজেপি এই গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকের নাম হল চিন্তন শিবির। এর আগে ২০১৬ সালে ডায়মন্ড হারবারে চিন্তন শিবির হয়েছিল। সেই চিন্তন শিবিরে ২০১৮-র পঞ্চায়েত নির্বাচন ও ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে সাফল্যের লক্ষ্যে রোডম্যাপ তৈরি হয়েছিল।’ চিন্তন শিবির শেষে রবিবার বিকেলে দুর্গাপুরের সিটি সেন্টারের গান্ধী মোড়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীশ ঘোষ সহ কয়েকজন রাজ্য নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে একটি জনসভা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানা গেছে।



Like Us On Facebook