চিকিৎসায় গাফিলতিতে রোগী মৃত্যুর অভিযোগে হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক এবং সংশ্লিষ্ট হাসপাতালের পরিচালন বোর্ডের কর্তাদের নামে বৃহস্পতিবার মামলা দায়ের করলেন মৃতের পরিবার। মৃতের নাম শঙ্কর পাল(৬৭)। দুর্গাপুরের বেনাচিতির রাধাকৃষ্ণপল্লীর বাসিন্দা। মামলাকারী উত্তম কুন্ডু বলেন, ‘আমার আত্মীয় শঙ্কর পাল বুকে সামান্য ব্যথা অনুভব করায় আমরা শঙ্করবাবুকে ১ ডিসেম্বর দুর্গাপুরের গান্ধী মোড়ের হেল্থ ওয়ার্ল্ড হাসপাতালে ভর্তি করি। প্রাথমিকভাবে জুনিয়র ডাক্তাররা তাঁকে দেখে ইসিজি করে আমাদের জানান শঙ্করবাবুর হৃদযন্ত্রে বড় কোন সমস্যা নেই। চিকিৎসকরা রোগীকে সেই রাতটা হাসপাতালে পর্যবেক্ষণে রাখার পরামর্শ দেন। আমরা নিশ্চিন্ত হয়ে বাড়ি ফিরে আসি। এরপর মধ্যরাতে হাসপাতাল থেকে আমাদের ডেকে জানানো হয় রোগীর অবস্থা সঙ্কটজনক। আর ভোর রাতে রোগীর মৃত্যুর কথা ঘোষণা করা হয়।’ উত্তম কুন্ডুর অভিযোগ, যে চিকিৎসকের অধীনে রোগীকে ভর্তি করা হয়, তিনি একবারও রোগীকে দেখতে আসেননি। হাসপাতালের চূড়ান্ত গফিলতিতেই রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এরপর হাসপাতালের বিরুদ্ধে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগে দুর্গাপুর মহকুমা আদালতে মামলা দায়ের করেন উত্তম কুন্ডু।

জানা গেছে, হেল্থ ওয়ার্ল্ড হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সহ কয়েকজন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে দুর্গাপুর মহকুমা আদালতে বিভিন্ন ধারায় মামলা দায়ের করেন উত্তম কুন্ডুর আইনজীবী। এই বিষয়ে হেল্থ ওয়ার্ল্ড হাসপাতালের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর প্রবীর মুখার্জীকে প্রশ্ন করলে প্রবীরবাবু চিকিৎসায় গাফিলতিতে রোগীমৃত্যুর অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘যেহেতু এই বিষয়টি আদালতের বিচারাধীন, তাই আমি এব্যাপারে কিছু মন্তব্য করব না। যা বলার আদালতকেই জানাবো।’

Like Us On Facebook