মিশন নির্মল বাংলার শৌচালয় নির্মানে দুর্নীতি নিয়ে সরব হল দুর্গাপুরের ১৩ টি বাম গণসংগঠন। দুর্গাপুর নগর নিগমে গণসংগঠনের দলীয় কর্মীরা শুক্রবার মহানাগরিক অপূর্ব মুখার্জীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে মিশন নির্মল বাংলার দুর্নীতি নিয়ে সরব হন। গণসংগঠনের কর্মীরা মিশন নির্মল বাংলার বিভিন্ন ওয়ার্ডের শৌচালয় তৈরী নিয়ে শাসকদলের কর্মীদের বৈমাতৃসুলভ আচরন, শৌচালয় নির্মাণে গয়ংগচ্ছভাব সহ নিম্ন মানের মাল সরবরাহের ফলে শৌচালয় সম্পূর্ণ হওয়ার পূর্বেই তার ভগ্নদশা সহ শৌচালয় নির্মাণের এলাকা ভিত্তিক আর্থিক দুর্নীতির তালিকা দুর্গাপুর নগর নিগমের মহানাগরিকের হাতে তুলে দেন। বিভিন্ন ওয়ার্ডের যে সব গরীব মানুষ মিশন নির্মল বাংলার শৌচালয়ের জন্য অর্থ জমা করেও শৌচালয়ের সুবিধা থেকে বঞ্চিত তাদের মধ্যে কয়েক জনকে এদিন গণসংগঠনের কর্মীরা মহানাগরিকের সামনে হাজির করেন। সিপিএম নেতা তথা বাম গন সংগঠনের আহ্বায়ক পঙ্কজ রায় সরকার বর্ধমান ডট কমকে বলেন, মিশন নির্মল বাংলায় শৌচালয় নির্মাণে চরম দুর্নীতি নিয়ে আজ দুর্গাপুরের ১৩ টি বাম গণসংগঠন যৌথ ভাবে শৌচালয় নির্মাণের স্বচ্ছতা সহ তিনটি প্রধান দাবি নিয়ে দুর্গাপুরের মেয়রকে একটি ডেপুটেশন দিলাম। যে সব গরীব মানুষ কষ্ঠার্জিত টাকা শৌচালয়ের জন্য জমা দিয়েও শৌচালয় পাননি তাদের প্রতিনিধিদেরও মেয়রের কাছে নিয়ে গিয়েছিলাম আমরা আজ। মেয়র গরীব মানুষের কথা সরাসরি শুনলেন না। গরীব মানুষের জন্য শৌচালয় নির্মাণের টাকা যারা হজম করে দেয় তাদের কাছে কি ভাবে সৌজন্যতা আশা করা যায় পাল্টা প্রশ্ন করলেন পঙ্কজবাবু এদিন। শুক্রবার দুর্গাপুর নগর নিগমে ১৩ টি বাম গণসংগঠনের ডেপুটেশন কে ঘিরে প্রবল উত্তেজনা ছড়ায়।

Like Us On Facebook