রাঁচির করোনা রেড জোন থেকে এসে কোন ফিট সার্টিফিকেট না দেখিয়ে সোজা অফিসে কাজে যোগ দেওয়ায় সংশ্লিষ্ট অফিসের সমস্ত কর্মীরা অফিসের বাইরে বেরিয়ে ওই আধিকারিকের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে ফেটে পড়লেন। আধিকারিককে কোয়রানটাইনে পাঠানো এবং অফিস স্যানিটাইজ করার দাবিতে পুলিশ ডাকলেন অফিসের কর্মীরা। প্রাথমিকভাবে সংশ্লিষ্ট আধিকারিক অফিস থেকে বের না হলেও কর্মীদের বিক্ষোভের জেরে শেষমেষ অফিস ছেড়ে বাড়ির পথে পা বাড়ান। পুলিশ এসে অফিসের কর্মীদের কথা শুনে তাঁদের বোঝানোর চেষ্টা করে তখনকার মতো অবস্থা সামাল দেয়। মঙ্গলবার অফিস শুরুর সময়ে দুর্গাপুরের প্রভিডেন্ট ফান্ড রিজিওনাল অফিসে এই ঘটনায় ব্যপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

জানা গেছে, ওই আধিকারিকের রাঁচিতে বাড়ি। দুর্গাপুরের সিটি সেন্টারে থাকেন বলে জানা গেছে। দুর্গাপুরে প্রভিডেন্ট ফান্ড রিজিওনাল অফিসের কর্মীদের অভিযোগ, অফিসের ওই পদস্থ আধিকারিক রাঁচির বাড়িতে গিয়েছিলেন। যেখানে গিয়েছিলেন সেটি করোনা রেড জোন বলে চিহ্নিত। মঙ্গলবার অফিসে ঢুকে সোজা নিজের রুমে চলে যান বলে অভিযোগ। অফিসের কর্মীরা বলেন, ‘পদস্থ ওই আধিকারিক রেড জোন থেকে এলেও তিনি শারীরিক ফিট সার্টিফিকেট দেখাননি। উল্টে আমরা প্রতিবাদ করায় আমাদের উপর হম্বিতম্বি করেন।’ খবর পেয়ে সিটি সেন্টার ফাঁড়ি থেকে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করে। খবর সংগ্রহ করা পর্যন্ত জানা গেছে শেষমেষ অফিসের ওই আধিকারিক পরে বাড়ি ফিরে যান। এবং কর্মীদের দাবি অফিস স্যানিটাইজেশন না হলে তাঁরা আর অফিসে ঢুকবেন না।

Like Us On Facebook