করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ নারায়ণ হাজরা চৌধুরী। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর। আকস্মিকভাবে নারায়ণবাবুর এই মৃত্যুতে গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে তৃণমূল মহলে। উল্লেখ্য, নারায়ণবাবু একদা যুব কংগ্রেসের জেলা সভাপতি ছিলেন। রীতিমত বাগ্মী নেতা হিসাবে অবিভক্ত বর্ধমান জেলায় তিনি জনপ্রিয়ও ছিলেন। সম্প্রতি করোনায় আক্রান্ত হয়ে তিনি বর্ধমানের কোভিড হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। সেখানেই বৃহস্পতিবার রাতে তাঁর মৃত্যু হয়।

শুক্রবার সকালে ক্যামরী কোভিড হাসপাতালে আসেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি স্বপন দেবনাথ, জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধাড়া, মেণ্টর উজ্জ্বল প্রামাণিক সহ জেলার নেতারা।

উল্লেখ্য, এই করোনায় আক্রান্ত হয়ে বর্তমানে কোভিড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন জেলা পরিষদের পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ উত্তম সেনগুপ্ত এবং তাঁর স্ত্রী শিখা সেনগুপ্তও। শিখাদেবী জেলা তৃণমূল মহিলা কংগ্রেসের সভানেত্রী। এদিন স্বপন দেবনাথ তাঁদের চিকিৎসার বিষয়েও খোঁজখবর নেন। বর্তমানে তাঁরা সুস্থ রয়েছেন বলে জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবারই উত্তমবাবুদের আরোগ্য কামনায় বর্ধমান কার্জন গেট চার্চে প্রার্থনাও জানান চার্চের সদস্যরা।

 

Like Us On Facebook