সংগৃহীত ছবি

এটিএম জালিয়াতি চক্রের বিরুদ্ধে বড়সড় সাফল্য পেল পূর্ব বর্ধমানের ভাতাড় থানার পুলিশ। চক্রের পাণ্ডা সহ গ্রেফতার তিন। সাইবার প্রতারণায় ফের ঝাড়খণ্ডের জামতাড়ার নাম উঠে এল।

গত ১৭ আগস্ট ভাতাড়ের কুবাজপুরের আশুতোষ মুখার্জির কাছে ব্যাঙ্ক ম্যানেজার পরিচয় দিয়ে একটি ফোন আসে। আশুতোষবাবু বর্ধমান পূর্ত দফতরের কর্মী। তাঁর কাছে কায়দা করে প্রতারক ডেভিট কার্ডের বিবরণ জেনে নেয়। পরে তাঁর অ্যাকাউন্ট থেকে ১ লক্ষ ১৭ হাজার টাকা তুলে নেওয়া হয়। মোবাইলে মেসেজ পেয়ে তিনি ভাতাড় থানায় অভিযোগ করেন। পুলিশ তদন্তে নেমে ঝাড়খণ্ডের জামতাড়ার বাসিন্দা আলম আনসারি আর পশ্চিম বর্ধমানের সালানপুরের বাসিন্দা সুশান্ত সরেনকে গ্রেফতার করে। তাদের কাছ থেকে মূল পাণ্ডার হদিশ পায় পুলিশ। মঙ্গলবার এই চক্রের চাঁই করণকুমার মুর্মুকে গ্রেফতার করা হয় ঝাড়খণ্ডের শাহেরপুরার শ্বশুরবাড়ি থেকে। তার বাড়ি গিরিডিতে। এদিন ধৃতকে বর্ধমান আদালতে তোলা হয়। আদালত আট দিন পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেয়।

Like Us On Facebook