মাধবডিহির খোকন মাঝি খুনের ঘটনার পুনর্নির্মাণ করল মাধবডিহি থানা। মঙ্গলবার বর্ধমান সদরের এসডিপিও শৌভনিক মুখার্জীর উপস্থিতিতে হয় এই পুনর্নির্মাণ। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, খোকন মাঝিকে খুন করে বাপ্পাদিত্যই। পরে দেহ লোপাটে প্রত্যক্ষ ভুমিকা নেই তাপসী মাঝিও। এছাড়াও দেহ লোপাটে বাপ্পার এক শাগরেদও যুক্ত বলে বাপ্পা স্বীকার করেছে। পুলিশ তারও খোঁজ চালাচ্ছে। পুনর্নির্মাণের সময় খোকন মাঝির পরিবারের তরফে তার ছোট ভাই ও মেয়েও উপস্থিত ছিল। ছিল বাপ্পার পরিবারের তরফেও কয়েক জন। সকলের উপস্থিতিতেই কিভাবে খুন ও পরে দেহ লোপাট করা হয়েছিল তা দেখায় বাপ্পা। স্বীকারও করে খুন সেই করেছে। এমনকি তাপসীর সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কথাও দুজনেই স্বীকার করে। এদিকে এই ঘটনায় ব্যবহৃত সাইকেলও উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে বলে পুলিশসূত্রে জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত বুধবারই সকালে বর্ধমানের মাধবডিহি থানার বর্ধমান-আরামবাগ রোডের নন্দনপুর ঢাল এলাকায় নয়ানজুলি থেকে পুলিশ উদ্ধার করেছিল বস্তাবন্দি এক পুরুষের মৃতদেহ। আর তারপরেই তদন্তে নেমে মাধবডিহি থানার পুলিশ বুধবার রাত্রেই প্রথমে মৃতের স্ত্রী এবং পরে তার প্রেমিককেও আটক করে। পরে তাদের জিজ্ঞাসাবাদে উঠে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। পুলিশ সূত্রে জানানো হয়, হুগলীর গোঘাট থানার পানপাতা এলাকার বাসিন্দা খোকন মাঝি (৩৮) এবং তাঁর স্ত্রী তাপসী মাঝি ওই গ্রামেরই অবস্থাসম্পন্ন কৃষক বাপ্পাদিত্য পানের বাড়িতে কাজ করত। বাপ্পাদিত্যের প্রায় সাড়ে পাঁচ বিঘে জমি ছাড়াও একলক্ষি বাজার এলাকায় একটি দোকানঘরও রয়েছে। তারও দেখভাল করত খোকন মাঝি। পুলিশ জানায়, বেশ কিছুদিন ধরেই তাপসী মাঝির সঙ্গে বিবাহ বর্হিভূত সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল বাপ্পাদিত্যের। তা নিয়ে খোকন মাঝির সঙ্গে অশান্তিও চলছিল। ইতিমধ্যে দশমীর দিন সন্ধ্যায় বাপ্পাদিত্য খোকনকে বাজারে ডেকে নিয়ে গিয়ে মদ খাওয়ায়। এই সময়ই ফের তাপসী প্রসঙ্গ ওঠে। সেই সময় বাপ্পা খোকনকে মারধোর করে। তাতেই ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় খোকনের। বাপ্পা মৃতদেহটি বস্তাবন্দি করে নন্দকুমার ঢালের কাছে নয়ানজুলিতে ফেলে দেয়। এদিকে, বুধবার সকালে বস্তাবন্দি মৃতদেহ উদ্ধারের পর মৃতের শ্যালক দেবু রায় মাধবডিহি থানায় এসে মৃতদেহ সনাক্ত করে। অন্যদিকে, খোকনের হাতে উল্কিতে লেখা তাপসীর নাম দেখে তাকে ডেকেও জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিশ। পুলিশি জেরায় ভেঙে পড়ে তাপসী। স্বীকার করে বাপ্পার সঙ্গে বিবাহ বর্হিভূত সম্পর্কের কথা। এরপরই পুলিশ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা নাগাদ বাপ্পাদিত্য ও তাপসীকে গ্রেপ্তার করে।

Like Us On Facebook